1. bnn.press@hotmail.co.uk : bhorersylhet24 : ভোরের সিলেট
  2. zakirhosan68@gmail.com : zakir hosan : zakir hosan
সামরিক বাহিনীর বিরুদ্ধে তদন্ত করবে পাকিস্তান - Bhorersylhet24

সামরিক বাহিনীর বিরুদ্ধে তদন্ত করবে পাকিস্তান

রিপোর্টার নাম
  • প্রকাশিত : রবিবার, ৩১ মার্চ, ২০২৪
  • ১৯ বার ভিউ

গোলাম আলী খান : বিচার বিভাগীয় সিদ্ধান্ত গ্রহণের ক্ষেত্রে পাকিস্তানের প্রভাবশালী সামরিক গোয়েন্দা সংস্থার বিরুদ্ধে হস্তক্ষেপ করা ও ভয়ভীতি দেখানোর বিষয়ে হাইকোর্টের ছয় বিচারপতির অভিযোগ তদন্ত করার ঘোষণা দিয়েছে শাহবাজ সরকার। এ লক্ষ্যে একটি তদন্ত কমিশন গঠন করা হবে। পাকিস্তানের আইনমন্ত্রী আজম নাজির তারার গত বৃহস্পতিবার ইসলামাবাদে এক সংবাদ সম্মেলনে এ ঘোষণা দেন। আলজাজিরা ও রয়টার্স।

আজম নাজির জানান, প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরিফ ও প্রধান বিচারপতি কাজী ফায়েজ ইসারের মধ্যে এক বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ওই অভিযোগ নিয়ে প্রধান বিচারপতির দফতরে ইসলামাবাদ হাইকোর্টের ছয়জন বিচারপতির লেখা একটি চিঠি পাঠানোর পর প্রধানমন্ত্রী ও প্রধান বিচারপতির মধ্যে বৈঠকটি অনুষ্ঠিত হয়েছে।

আইনমন্ত্রী আজম নাজির বলেন, আমরা চাই, অভিযোগের পূর্ণাঙ্গ তদন্ত হোক। কেননা, আমরাও এর ভুক্তভোগী। অভিযোগ তদন্তে কমিশন গঠন বিষয়ে গতকাল শুক্রবার মন্ত্রিসভার বৈঠকে প্রধানমন্ত্রীর আনুষ্ঠানিক সিদ্ধান্ত নেওয়ার কথা রয়েছে বলে জানান তিনি।

ওই বিচারপতিরা অভিযোগ করেন, দেশের শীর্ষ গোয়েন্দা সংস্থা ‘ইন্টার-সার্ভিসেস ইন্টেলিজেন্স (আইএসআই)’ রাজনৈতিক মামলায় সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষেত্রে তাদের ভয় দেখাচ্ছে। এ বিষয়ে বার্তা সংস্থা রয়টার্স মন্তব্য জানতে চাইলে পাকিস্তানের সামরিক বাহিনীর গণমাধ্যম কার্যালয় কোনো সাড়া দেয়নি।
প্রধান বিচারপতি ইসার নেতৃত্বাধীন সুপ্রিম জুডিশিয়াল কাউন্সিল বরাবর এ চিঠি লেখেন বিচারপতিরা।

চিঠিতে উল্লেখ করা হয়, রাষ্ট্রের নির্বাহী শাখার অংশটির (সামরিক বাহিনী) বিষয়ে এমন কোনো অব্যাহত নীতি আছে কি না, যেখানে তারা গোয়েন্দা সংস্থাগুলোর মাধ্যমে বিচারপতিদের নির্যাতন বা ব্ল্যাকমেইলের হুমকির মাধ্যমে ভয় দেখাবে, রাজনৈতিক ফলাফলের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট বিষয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণকে প্রভাবিত করবে-এ নিয়ে তদন্ত ও ব্যবস্থা গ্রহণ করা জরুরি বলে আমরা মনে করি। এ প্রসঙ্গে ওই বিচারপতিরা একটি উদাহরণ তুলে ধরেন। তাতে বলা হয়, কারাবন্দি সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট একটি রাজনৈতিক মামলা গ্রহণের বিরুদ্ধে গত বছর সিদ্ধান্ত দেওয়া বিচারপতিদের দুজনকে ‘বন্ধুবান্ধব ও আত্মীয়দের’ মাধ্যমে ভয় দেখিয়েছেন আইএসআইয়ের কর্মকর্তারা। চিঠিতে আরও বলা হয়, এর আগে এ ধরনের ঘটনাগুলো ওই ছয়জন বিচারপতি তাদের প্রধানের নজরে এনেছিলেন। তখনকার প্রধান বিচারপতির সঙ্গে দেখা করে তারা বিচার বিভাগীয় সিদ্ধান্ত প্রভাবিত করে, আইএসআই কর্মকর্তাদের এমন চেষ্টার ব্যাপারে নিজেদের উদ্বেগের কথা জানিয়েছিলেন।

এই বিচারপতিরা বলেন, তৎকালীন প্রধান বিচারপতি বিষয়টি আইএসআই প্রধানের নজরে আনেন এবং তিনি এ ধরনের ঘটনা আর না ঘটার ব্যাপারে কথা দিয়েছেন বলে তাদের আশ^স্ত করেন। এরপরও হস্তক্ষেপের ঘটনা ঘটে চলেছে।

চিঠিতে ইসলামাবাদ হাইকোর্টের ছয় বিচারপতি অভিযোগ করেন, দেশের শীর্ষ গোয়েন্দা সংস্থা ‘ইন্টার-সার্ভিসেস ইন্টেলিজেন্স (আইএসআই)’ রাজনৈতিক মামলায় সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষেত্রে তাদের ভয় দেখাচ্ছে। আইএসআইয়ের বিরুদ্ধে একই আদালতের সিদ্ধান্তে হস্তক্ষেপ করার অভিযোগ করেছে ইমরান খানের প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরিফের দল পাকিস্তান মুসলিম লিগ-নওয়াজও (পিএমএল-এন)। ২০১৭ সালে তার বড় ভাই নওয়াজ শরিফ প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে ক্ষমতাচ্যুত হওয়ার পর তাকে ওই আদালত অভিযুক্ত করেছিলেন।

প্রসঙ্গত, পাকিস্তানে সরকার ভাঙা-গড়ায় দেশটির প্রভাবশালী সামরিক বাহিনীর ভূমিকা সুপরিচিত। ১৯৪৭ সালে ব্রিটেনের কাছ থেকে স্বাধীনতা পাওয়ার পর পাকিস্তানের ইতিহাসের প্রায় অর্ধেকটা সময়ই দেশ শাসন করেছেন সেনাশাসকরা। ইমরান খান ও নওয়াজ শরিফ-দুজনেরই অভিযোগ, জেনারেলদের সঙ্গে বিবাদে জড়ানোর পর তাদের সামরিক বাহিনী ক্ষমতাচ্যুত করে।

নিউজ শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *